এক মুসলিমের প্রতি অন্য মুসলিমের ৬ টি হক

প্রবন্ধটি পড়া হলে শেয়ার করতে ভুলবেন না
পরম করুনাময় মহান আল্লাহর নামে শুরু-

এক মুসলিম অন্য মুসলিমের প্রতি ৬টি হক রয়েছে। আর ইসলামে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে অন্যের হকের ওপর। হাদিসে এসেছে, কিয়ামতের দিন আল্লাহর সঙ্গে নাফরমানিকে তিনি ক্ষমা করে দেবেন কিন্তু অন্যের হক নষ্ট করলে সে ক্ষমা না করা পর্যন্ত আল্লাহ তাকে ক্ষমা করবেন না।

মানবাধিকারের গুরুত্ব ইসলামে এত বেশি যে হাদিসে বলা হয়েছে, মানুষ যখন আল্লাহর দরবারে তওবা করে যদি কারও অধিকার তার ওপর থাকে যতক্ষণ সে তাকে রাজি না করবে ততক্ষণ তার তওবা আল্লাহর দরবারে কবুল হবে না।

আবু হুরাইরা রা. বর্ণনা করেন যে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
سِتٌّ، قِيْلَ: مَا هُنَّ يَا رَسُوْلَ اللهِ ؟ قَالَ إذَا لَقِيْتَهُ فَسَلِّمْ عَلَيْهِ، وَ إذَا دَعَاكَ فَأجِبْهُ، وَ إذَا اسْتَنْصَحَكَ فَانْصَحْ لَهُ، وَ إذَا عَطَسَ فَحَمِدَ اللهَ فَشَمِّتْهُ، وَ إذَا مَرِضَ فَعُدْهُ، وَ إذَا مَاتَ فَاتَّبِعْهُ. رَوَاهُ مُسْلِمٌ
একজন মুসলমানের উপর অপর মুসলমানের ছয়টি হক রয়েছে। প্রশ্ন করা হল, হে আল্লাহর রাসূল ! সেগুলো কি কি ? বললেন, (এক) সাক্ষাতে সালাম বিনিময় করা, (দুই) আমন্ত্রণ করলে গ্রহণ করা, (তিন) উপদেশ চাইলে উপদেশ দেওয়া, (চার) হাঁচি দিয়ে আলহামদুলিল্লাহ বললে উত্তরে ইয়ারহামুকাল্লাহ বলা, (পাঁচ) অসুস্থ হলে সাক্ষাত করে খোঁজ খবর নেয়া এবং (ছয়) মৃত্যুবরণ করলে জানাজায় উপস্থিত থাকা। [মুসলিম – ৪০২৩]
সুতরাং প্রতিটি মুসলিম ব্যক্তিকে বিষয়গুলো লক্ষ রাখা উচিত। গভীরভাবে খেয়াল করলে দেখা যাবে, এই ৬টি বিষয় প্রায় অধিকাংশের ভেতর গরমিল থাকে। অনেক বড় ইবাদত করলেও অন্যের অধিকার বিষয়ে অনেকে অচেতন। যা ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে গুরুতর অন্যায়। কারণ এই অধিকার লঙ্ঘন করলে ব্যক্তি নিজে মাফ না করলে আল্লাহও মাফ করবেন না।

4 Comments

Click here for Comments
October 14, 2016 at 6:59 PM × This comment has been removed by a blog administrator.
avatar
admin
October 18, 2016 at 4:59 PM × This comment has been removed by a blog administrator.
avatar
admin

Post Your Comment

Thanks for your comment