রাসূল (সাঃ) এর কোন সুন্নাহের প্রতি ঠাট্টা বিদ্রুপের বিধান

প্রবন্ধটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না
রহমান রহীম আল্লাহ্‌ তায়ালার নামে-

প্রশ্ন:

দাঁড়ি, টাখনুর উপর কাপড় পরিধান এবং অন্যান্য সুন্নাহের প্রতি ঠাট্টা বিদ্রুপের বিধান কি?

যখন কাউকে উপরোক্ত সুন্নাহের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়া হয় তখন যারা বলে ‘আমাদের মন তো পরিষ্কার, এসবের দরকার কি?’ তাদের ক্ষেত্রেও বা কি বিধান ?

উত্তরঃ

দাঁড়ি, এমন কোন কাপড় পরিধান যার দৈর্ঘ্য রাসূল (সাঃ) এর সুন্নাহ অনুসারে ছোট (যেমনঃ টাখনুর উপর কাপড় পরিধান ) ইত্যাদি নিয়ে হাসি-তামাশাকারী একজন কাফির যদি তিনি এটা জেনে থাকেন যে, এটা আল্লাহর রাসূল (সাঃ) কর্তৃক সাব্যস্ত সুন্নাহ।

কেননা, এর দ্বারা সে পক্ষান্তরে আল্লাহর রাসূল (সাঃ) এর কথা এবং কাজকে নিয়ে তামাশা করছে। সে আল্লাহর রাসূল (সাঃ) এর বিরোধিতা করছে এবং তাঁর সুন্নাহ নিয়ে ঠাট্টা করছে এবং যে ব্যক্তি রাসূল (সাঃ) এর সুন্নাহের তামাশা করছে এবং জেনে বুঝে বিদ্রুপে লিপ্ত হচ্ছে সে আর মুসলিম থাকে না।

আল্লাহ বলেন:
“আর যদি তুমি তাদের কাছে জিজ্ঞেস কর, তবে তারা বলবে, আমরা তো কথার কথা বলছিলাম এবং কৌতুক করছিলাম। আপনি বলুন,তোমরা কি আল্লাহর সাথে,তাঁর হুকুম আহকামের সাথে এবং তাঁর রসূলের সাথে ঠাট্টা করছিলে? ছলনা কর না,তোমরা যে কাফের হয়ে গেছ ঈমান প্রকাশ করার পর। তোমাদের মধ্যে কোন কোন লোককে যদি আমি ক্ষমা করে দেইও,তবে অবশ্য কিছু লোককে আযাবও দেব। কারণ,তারা ছিল গোনাহগার।” [সূরা আত তাওবাহ: ৬৫-৬৬]

যদি কোন ব্যক্তিকে আল্লাহর রাসূলের কোন সুন্নাহ মানার জন্য বলা হয় এবং সে যদি বলে ,’আমার মন তো পরিষ্কার,এসবের দরকার কি?’ এবং সে শরীয়াহ অমান্য করে তবে সে শয়তান মিথ্যাবাদী। কেননা, বিশ্বাস কথা ও কর্ম- এ দুই এর সমষ্টি।

এই ধরনের আকীদা পোষণ বিদাআতে লিপ্ত মুর্জিয়া সম্প্রদায়ের অনুরূপ যারা বিশ্বাসকে কেবল অন্তরের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে ফেলেছে এবং বাহ্যিক আমলকে অস্বীকার করেছে। অপরদিকে, অন্তর যদি বিশ্বাস দ্বারা পূর্ণ থাকে তবে তার অবশ্যই বাহ্যিক প্রকাশ ঘটবে।

রাসূল (সাঃ) বলেন:
“নিশ্চয়ই শরীরের মধ্যে একটি গোশতের টুকরা আছে; যখন তা ঠিক থাকে তখন সমস্ত শরীর ঠিক থাকে। আর যখন তা নষ্ট হয়ে যায়, তখন গোটা দেহই নষ্ট হয়ে যায়। আর তা হচ্ছে হৃৎপিণ্ড (দিল,হার্ট, হৃদয় বা অন্তঃকরণ)।” (বুখারী হাদিস নং ৫২ ও মুসলিম হাদিস নং ১৫৯৯)

তিনি আরোও বলেন:
“মহান আল্লাহ তোমাদের শরীর ও চেহারার প্রতি তাকাবেন না। বরং তোমাদের মনের ও কর্মের প্রতি তাকাবেন।” (মুসলিম হাদিস নং ২৫৬৪)

অতএব, সত্যের অনুসরণ এবং ইসলামের আদেশ-নিষেধ মানতে অস্বীকার করা ঈমানহীনতার বহিঃপ্রকাশ যার মাধ্যমে তারা ইসলামের পথে আহবানকারীদের বাধা দেয়।

[islam–qa.com ত্থেকে অনুবাদকৃত]

Post Your Comment

Thanks for your comment